চবিতে ছাত্রলীগের অবরোধ, পুলিশ হেফাজতে অভিযুক্ত হানিফ

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) শাখা ছাত্রলীগের দুই নেতাকে মারধর দায়ে অভিযুক্ত মো. হানিফকে পুলিশ হেফাজতে নিয়েছে হাটহাজারী থানা পুলিশ।

বুধবার (১ জুন) বেলা সাড়ে ১২টার দিকে হানিফকে পুলিশ হেফাজতে নেয় হাটহাজারী থানা পুলিশ।

হানিফ ফতেপুর ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সদস্য। তার বিরুদ্ধে ১০টা মামলা রয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে।

হাটহাজারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম বলেন, অভিযুক্ত হানিফকে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। যাচাই-বাছাই করে আটক নাকি গ্রেপ্তার তা কিছুক্ষণ পর বলা যাবে।

এর আগে বুধবার (১ জুন) সকাল থেকে ছাত্রলীগের একাংশ ভিএক্স গ্রুপের দুই নেতাকে মারধরের প্রতিবাদে বিশ্ববিদ্যালয়ে অবরোধের ডাক দেয়। বন্ধ থাকে শাটল ট্রেনও। আন্দোলনকারীদের বাধার মুখে সকাল থেকে ক্যাম্পাস থেকে শিক্ষকদের কোনো বাস শহরে যেতে পারেনি। বন্ধ রয়েছে ক্যাম্পাসে রিকশা ও সিএনজি চলাচলও। এতে পূর্ব নির্ধারিত ক্লাস-পরীক্ষা স্থগিত করে বিভিন্ন বিভাগ।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার (৩১ মে) ভোররাত ১টার দিকে ছাত্রলীগের ভিএক্স গ্রুপের নেতা প্রদীপ চক্রবর্তী দু্র্জয় ও মোহাম্মদ রাশেদকে এক নম্বর গেট থেকে মটরসাইকেল যোগে ক্যাম্পাসে আসছিলেন। পথে মাজার গেট এলাকায় স্থানীয় যুবলীগ নেতা হানিফর অনুসারী গ্রুফের ৭/৮ জন কর্মী দেশীঅস্ত্রসহ মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে তাদের মারধর করে। ভাঙচুর করা হয় মোটরসাইকেলও। পরে এ ঘটনার প্রতিবাদে ভিএক্স গ্রুপের অনুসারীরা জিরো পয়েন্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকে তালা লাগিয়ে ক্যাম্পাস অবরুদ্ধ করে রাখে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.